Friday , August 23 2019
সর্বশেষ সংবাদ :
Home / সারাদেশ / নারীদের জন্য গণপরিবহনে ৫০ শতাংশ আসন সংরক্ষণের দাবি: বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের

নারীদের জন্য গণপরিবহনে ৫০ শতাংশ আসন সংরক্ষণের দাবি: বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের

দেশবাংলা প্রতিদিন ডেস্ক : নারীদের জন্য গণপরিবহনে ৫০ শতাংশ আসন সংরক্ষণের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচার সুফিয়া কামাল ভবনে ‘নারীর জন্য নিরাপদ নগর চাই’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের নেতারা এ দাবি জানান। মহিলা পরিষদের ঢাকা মহানগরের সভাপতি মাহাতাবুন নেসা বলেন, রাজধানী ঢাকায় নারীদের সামাজিক, অর্থনৈতিক, বর্তমানে গণপরিবহনগুলোতে ইঞ্জিনের ওপরে নারীদের জন্য আসন বরাদ্দ আছে, যেখানে খুবই সংকুচিত ও ঠাসাঠাসি করে বসতে হয়। এসব সিটে চার থেকে পাঁচ জনকে বসতে হয়।

এ ছাড়া প্রত্যেক গাড়িতে নারী, শিশু ও প্রতিবন্ধীদের জন্য মাত্র নয়টি সিট বরাদ্দ রয়েছে। যা নারী যাত্রীদের তুলনায় অনেক কম। তাই নারীদের জন্য গণপরিবহনে নির্দিষ্ট আসন সংখ্যার বদলে ৫০ শতাংশ আসন সংরক্ষণের দাবি জানান তিনি। মাহাতাবুন নেসা বলেন, ইঞ্জিনের পাশে নারী আসন হওয়ায় স্বাস্থ্য ঝুঁকির মুখে পড়ছেন নারীরা। বিশেষ করে গর্ভবতী নারী ও ঋতুচক্রের সময় বেশি সমস্যায় পড়তে হয়। এ ছাড়াও প্রতিবন্ধী নারীদের ওই আসনে বসতে খুবই কষ্ট হয়। প্রতিবন্ধী নারীরা যে ধরনের উপকরণ ব্যবহার করেন তা ব্যবহারেও সমস্যা হয়।

এই নারী নেত্রী বলেন, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে চালক ও সহকারীরা নারী যাত্রী নিতে অনিহা প্রকাশ করে। অনিরাপদ ঝুঁকিপূর্ণ যানবাহনের কারণে অনেক নারী কর্মবিমুখ হয়ে পড়ছেন। ফলে দেশের উন্নয়নে অগ্রগামী ভূমিকা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে পরিবার, সমাজ ও দেশ। তাই মহিলা পরিষদের দাবি নারীদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি ও মর্যাদার কথা বিবেচনায় নিয়ে ইঞ্জিনের ওপর থেকে আসন সরিয়ে নেওয়ার দাবি জানাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে যানবাহন ও রাস্তায় নারীদের প্রতি যৌন হয়রানি বন্ধ করা, নিরাপদ নগরী ও নিরাপদ যাতায়াত ব্যবস্থা নিশ্চিত করা, গণপরিবহনে নারীদের ভোগান্তি বন্ধ করা ও সব ধরনের যানবাহন নারীবান্ধব করার দাবি জানানো হয়। এ সময় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রেহানা ইউনুসসহ সংগঠনের নেতারা ছিলেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*